মোহাম্মদ রোমান হাওলাদার,

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার সিরাজদিখান বাজার সড়কের গোয়ালবাড়ী মোড় থেকে শিকদার পেট্রোল পাম্প (উপজেলা মোড়) পর্যন্ত তীব্র যানজটের কবলে পরে ভোগান্তি পোহাচ্ছেন চালক,যাত্রী ও পথচারীসহ উপজেলার হাজারো মানুষ। তীব্র যানজটের কারণে জনসাধারণের ভোগান্তির যেন কমতি নেই। সিরাজদিখান বাজার সড়কে দীর্ঘক্ষণের অনাকাঙ্ক্ষিত যানজট নিরসনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদ্যোগ থাকলেও বাস্তবায়ন হচ্ছে না।এছাড়া যানজট নিরসনে প্রশাসনের জোড়ালো কোন ভূমিকা নেই বললেই চলে। ফলে বছর জুড়ে যানজটের কবলে পরে ভোগান্তি পোহানো ছাড়া কোন উপায়ই যেন নেই জনসাধারণের। সিরাজদিখান বাজার ব্যবসায়ী ও স্থানীয় জণসাধারণ বাজার সড়কের তীব্র যানজট নিরসনে জোড়ালো পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। সিরাজদিখান বাজার ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা বাজারে যানজটের মুল কারন তিনটি উল্লেখ করে বলেন, গোয়ালবাড়ী মোড়ে রাস্তার এপাড় ওপাড় করে সিরাজদিখান পরিবহন ও ডিএম পরিবহনের বাস দীর্ঘক্ষণ দাড় করিয়ে যাত্রী উঠানো নামানো, বাজার সড়কের মাঝ বরাবর অবস্থিত প্রাইম ব্যাংকের মোড়ে দৈর্ঘ্য কম থাকায় ধীর গতিতে বাস পারাপার এবং সিরাজদিখান বাজার সংলগ্ন খালের উপর নির্মিত ব্রীজের সংস্কারকৃত স্থান উঁচু হওয়ায় সময় নিয়ে বাস ও বিভিন্ন যান চলাচল করার কারণে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়ে থাকে। এছাড়া বাজার সড়কের দুপাশের রড সিমেন্টের দোকান গুলোর সামনে ছোট বড় ট্রাক, পিকাপ থামিয়ে লোড আনলোডের কারণে তীব্র এবং দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে বলে জানান তারা। বাজার সড়কে যানজট নিরসন ও ইজিবাইকের সিরিয়াল মেন্টেনের দায়ীত্বে থাকা লাইনম্যান আলাউদ্দিন বলেন, আমরা আমাদের দায়িত্ব পালনে কোন ত্রুটি রাখছি না। যারা যানজটের ব্যপারে উদ্যোগ নেওয়ার কথা তারাইতো নিচ্ছে না। গাড়ীর ড্রাইভাররা ও পাবলিক যদি না বোঝে তখন আমাদের কিবা করা থাকে!