শেখ শোভন আহমেদ, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় কিছুতেই থামছেনা আত্মহত্যার ঘটনা। আজ শুক্রবার উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে আছিয়া, সুবর্ণা ও সাগর আত্মহত্যা করেছেন।
আছিয়া(৬২) উপজেলার রতনপুর গ্রামের আবু হানিফার স্ত্রী তিনি গলায় ফাস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন৷ সুবর্ণা মণ্ডল(১৬) উপজেলার নদীরগাতি গ্রামের নীখিল চন্দ্র মণ্ডলের মেয়ে সেও গালাই ফাস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। সাগর (১৭) উপজেলার কাচেরকোল গ্রামের জলিলের ছেলে। সাগর কিটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছেন৷ শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আমিনুল ইসলাম বলেন ৩ টি আত্মহত্যার ঘটনা শুনেছি এবং পুলিশ পাঠানো হয়েছে। আইননুযায়ী পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। গত ৭ দিনে সরকারি হিসাবে উপজেলায় ৭ জন আত্মহত্যা করেছে। প্রতিবছর গড়ে ২/৩ শত মানুষ আত্মহত্যা করে শৈলকুপা উপজেলা জুড়ে। এর মাঝে ১০ বছরের শিশু থেকে ৮০ বছরের বৃদ্ধাও থাকে৷ তবে ১৫-৩০ বছরের যুবক যুবতীরা আত্মহত্যা বেশি করে।
আত্মহত্যা প্রতিরোধে সামাজিক কোন কার্যক্রম চোখে পড়েনা শৈলকুপা উপজেলায়। উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে মাঝে মাঝে ঘোষণা দেওয়া হলেও তা মাঠ পর্যায়ে কোন কাজে আসেনা। সেচ্ছাসেবী সংগঠন কিছু সামাজিক কার্যক্রম করতে চাইলেও আর্থিক, রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক চাপে আলোর মুখ দেখেনা ।