মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ীতে খাল দখল করে পানি নিস্কাশন বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে এক ভূমিদস্যুর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার টঙ্গিবাড়ী উপজেলার পাঁচগাও ইউনিয়নের শিদ্ধেশ্বরী বাজার এলাকায়। সেখানে মালিকানা জমি ভরাটের সুযোগে সরকারি খাল ভরাট করে দখলে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে পাচঁগাও এলাকার রমিজ উদ্দিন মালের ছেলে আল-আমিন মালের বিরুদ্ধে। এছাড়াও ভরাটকৃত মালিকানা জমি তার এমন কাগজও দেখাতে পারেনি বলেও অভিযোগ রয়েছে।

সরেজমিন ঘুরে দেখাগেছে শিদ্ধেশ্বরী বাজার এলাকায় একটি মালিকানা জমি ভরাটের সুযোগে সরকারি খাল ভরাট করে দখলে নিচ্ছে ভূমিদস্যু আল-আমিন। দখলের বিরুদ্ধে কেউ বাঁধা দিলে তাদের বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। প্রবাহমান খালটি দখলে নিলে আসে পাসের কৃষিজমির পানি নিস্কাশন বন্ধ হয়ে যাবে। ফলে কৃষিকাজ ব্যহত হওয়ার সঙ্কা দেখা দিয়েছে। খাল দখলের বিরুদ্ধে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে ভূমিদস্যু আল-আমিন সন্ত্রাসী ভাড়া করে সাংবাদিকদের তথ্য প্রদানকারীতের প্রাণন্বাশের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে করে তথ্য প্রধান কারীরা আতঙ্কিত হয়ে পরেছে।

স্থানীয়রা জানান,দীর্ঘদিনের স্বচল খালটির একটি অংশ ভরাট করে দখলে নিচ্ছে আল-আমিন। তাকে খাল ভরাটের ব্যাপারে একাধিকবার বাঁধা দিলে ভরাট কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। কেউ বাঁধা দিলে তাকে হত্যার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। দ্রুত খাল দখলকারির বিরুদ্ধে আইগত ব্যবস্থা গ্রহনের মাধ্যমে দখলকৃত খাল উচ্ছেদেন দাবীও জানান স্থানীরা।

সরকারি খাল ক্রয়করা সম্পত্তির দাবীর করে দখলবাজ ভূমিদস্যু আল-আমিন জানান, হাসাইল এলাকা মনির নামের একজনের কাছ থেকে এজমি ক্রয় করেছি। আমাকে মাইপা দিয়া গেছে, আমিন পাজগাও এর সেলিম তবে সরকারি জায়গা হলে এটা আমার অন্যাই এটা তো অন্যাই, যদি সমস্যা হয় আমি না বানমু। কিনছি না বানলে না বানলাম সমস্যা নাই।

পাজগাও ভূমি অফিসার মো: জসিম জানান, আল আমিন কোন দলিল দেখাতে পারেনি এবং ওনি আসার কথা ছিল আসে নাই। তবে আল আমিন বলছে দলিল লেখকের কাছে দলিল লিখতে দিছে।