মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিমে প্রতিদিন চুরি হচ্ছে ইন্টার নেট সংযোগের ডিভাইস ও ক্যাবেল অপরেটারের সংযোগ তার । এতে করে অনলাইন সেবা ও ডিস লাইন সেবা থেকে বঞ্চিত হয়ে চরম ভোগান্তিতে পড়ছে গ্রহকরা। সেঞ্চুরি লিংক ও বর্ণালী স্যাটেলাইট প্রতিষ্ঠানের ডিভাইস ও ডিস সংযোগ তারগুলো চুরি হচ্ছে।
ইতোমধ্যে প্রতিষ্ঠান দুটির ৬০ টি ইন্টারনেইট ডিভাইস ও দুই কিলোমিটার ডিস সংযোগের তার কেটে নিয়ে যায়। এতে করে আর্থীক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ্য হচ্ছে মালিক পক্ষ। অপরদিকে চরম ভোগান্তিতে পড়ছে গ্রাহকরা। এছাড়াও ইন্টার নেইট ও ডিস সংযোগ সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে হাজারো গ্রাহক। এসব চুরির ঘটনায় মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে প্রতিষ্ঠান দুটির মালিক পক্ষ।

জানাগেছে,বর্ণালী স্যাটেলাইট ডিস সংযোগ স্থাপন
করেন বিগত ৩০ বছর পূর্বে ও বিগত ৮ বছর পূর্বে সেঞ্চুরি লিংক সর্বপ্রথম ইন্টার নেইট সংযোগ সেবা চালু করে মিরকাদিম পৌরসভায়। তারা এই দীর্ঘ বছর যাবত গ্রহকদের সেবা দিয়ে আসলেও গত এক বছর আগে থেকে অবৈধ ভাবে ইভান ডায়ানামিক নেটওর্য়াক নামের একটি প্রতিষ্ঠান ইন্টার নেইট সংযোগ দেয়া শুরু করে। তার পর থেকে নানা ভাবে ডিভাইস ও ডিস লাইনেরর তার চুরির ঘটনা ঘটছে বর্ণালী স্যাটেলাইা ও সেঞ্চুরি লিংক নামের প্রতিষ্ঠান দুটির। এসব ঘটনায় জেলা প্রশাসক,পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ ছাড়াও সদর থানায় একাধিক লিখিত অভিযোগ দায়ের করেও কোনো প্রতিকার পচ্ছেনা তারা।

প্রতিনিয়ত ডিভাইস ও তার চুরির ঘটনায় আতঙ্কিতের কথা জানিয়ে বর্ণালী স্যাটেলাইটের পরিচালক বাবুল আহম্মেদ বলেন,দীর্ঘ ৩০ বছর যাবত ডিস লাইন ও ৮ বছর যাবত গ্রাহকদের ইন্টার নেইট সেবা দিয়ে আসছি। বিগত একবছর পূর্বে অবৈধ ভাবে সাইফ আকাশ নামের কথিত এক ছাত্রলীগ নেতা ইভান ডায়নামিক নেটওর্য়াক নামের একটি প্রতিষ্ঠান চালু করে যার বৈধ কোনো কাগজ পত্র নেই। তারা আমাদের ইন্টার নেইট ডিভাইস চুরি করে তাদের নাম ব্যবহার করে অবৈধ ভাবে জোর করে ইন্টার নেইট সংযোগ স্থাপন করছে। ডিভাইস আর ডিস লাইনের তার চুরির ঘটনায় আমরা সঙ্কিত হয়ে পরেছি।

ডিভাইস চুরির বিষয়টি অস্বীকার করে অভিযুক্ত ইভান ডায়নামিক নেটওর্য়াকের মালিক সাইফ আকাশ বলেন ডিভাইস চুরির বিষয়টি সত্য নয় আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

এব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন,ডিভাইস ও ডিসলাইনের তার চুরির ঘটনায় একটি লিখিত অভিডোগ পেয়েছি। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।